New Muslims APP

রাতের নামাজের ফজীলত

কিয়ামুল লাইল
কিয়ামুল লাইল
কিয়ামুল লাইল

(রহমানের আসল বান্দা) তারাই যারা নিজেদের রবের সামনে সিজদায় অবনত হয়ে ও দাঁড়িয়ে রাত কাটিয়ে দেয়।

রাসূলুল্লাহ (সা) বলেছেন: তোমরা রাতের নামাজ জরুরী করে নাও, কারণ তা নেককার লোকদের অভ্যাস, তোমাদের রবের নৈকট্য, গুনাহের কাফফারা ও পাপ থেকে সুরক্ষা। (তিরমিযী)

আল্লাহ রাব্বুল আলামীন ইরশাদ করেন: (রহমানের আসল বান্দা) তারাই যারা নিজেদের রবের সামনে সিজদায় অবনত হয়ে ও দাঁড়িয়ে রাত কাটিয়ে দেয়। (সূরা ফুরকান-৬৪)

আল্লহ তা’আলা আরো ইরশাদ করেন:- (মুত্তাকীরা) রাতের বেলা তারা কমই ঘুমাতো। (সূরা যারিয়াত-১৭)

অন্যত্র আল্লাহ রাব্বুল আলামীন ইরশাদ করেন: তাদের পিঠ থাকে বিছানা থেকে আলাদা, নিজেদের রবকে ডাকে আকাঙ্খা সহকারে এবং যা কিছু রিযিক আমি তাদেরকে দিয়েছি তা থেকে ব্যয় করে। তারপর কেউ জানে না তাদের কাজের পুরস্কার হিসেবে তাদের চোখের শীতলতার কি সরঞ্জাম লুকিয়ে রাখা হয়েছে। (সূরা সিজদাহ: ১৬-১৭)

জান্নাতে যাওয়ার অন্যতম উপায় রাতের নামাজ

আব্দুল্লাহ ইবনে সালাম (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন: যখন নবী করীম (সা.) মদীনায় আগমন করেন, তখন আমি সর্বপ্রথম তাকে বলতে শুনেছি, তিনি বলেছেন: হে লোকেরা! তোমরা সালামের প্রসার কর, খাদ্য দান কর, আত্মীয়তার সম্পর্ক অটুট রাখ ও রাতে নামাজ আদায় কর যখন মানুষেরা ঘুমিয়ে থাকে, তাহলে নিরাপদে জান্নাতে প্রবেশ করবে। (তিরমিযী, ইবনে মাজা)

1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...

Leave a Reply


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.